NCTB Class 8 Bengali Chapter 6 রিপভ্যান উইংকল Solution


Warning: Undefined array key "https://nctbsolution.com/nctb-class-8-bengali-solution/" in /home/862143.cloudwaysapps.com/hpawmczmfj/public_html/wp-content/plugins/wpa-seo-auto-linker/wpa-seo-auto-linker.php on line 192

NCTB Class 8 Bengali Chapter 6 রিপভ্যান উইংকল Solution

Bangladesh Board Class 8 Bengali Solution Chapter 6 রিপভ্যান উইংকল Exercises Question and Answer by Experienced Teacher. NCTB Class 8 Bengali Solution Chapter 6 রিপভ্যান উইংকল.

NCTB Solution Class 8 Chapter 6 রিপভ্যান উইংকল : 

Board NCTB Bangladesh Board
Class 8
Subject Bengali
Chapter Six
Chapter Name                রিপভ্যান উইংকল

NCTB Class 8 Bengali Chapter 6 রিপভ্যান উইংকল Solution

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন :

(১) জুনিথ গার্ডনার কে?

(ক) রিপভ্যানের স্ত্রী

(খ) রিপভ্যানের নাতনি

(গ) ভ্যান বুশালের মেয়ে

(ঘ) রিপভ্যানের মেয়ে

উত্তর : (গ) ভ্যান বুশালের মেয়ে

(২) রিপভ্যান উইংকলগল্পে নারীর কোলের শিশুটি কী দেখে ভয় পেল?

(ক) অচেনা বৃদ্ধ

(খ) বন্দুক

(গ) লাঠি

(ঘ) কুকুর

উত্তর : (ক) অচেনা বৃদ্ধ

(৩) নারীর কন্ঠস্বর শুনে রিপের কোন স্মৃতি জেগে উঠল?

(ক) পুরাতন দিনের

(খ) বন্ধুদের

(গ) স্ত্রী-কন্যার

(ঘ) শিশুপুত্রের

উত্তর : (ক) পুরাতন দিনের

(8) “এখানকার লোকদের সম্বন্ধে তার পুরো জ্ঞানপিটার সম্পর্কে লেখকের এ উক্তির কারণ হলো-

(i) সবার প্রতি পিটারের ভালো আচরণ

(ii) পিটার এলাকার সার্বিক বিষয় জানে

(iii) মানুষ চিনতে পিটারের কখনো ভুল হয় না

নিচের কোনটি সঠিক?

(ক) i ii

(খ) ii iii

(গ) i iii

(ঘ) i, ii iii

উত্তর : (খ) ii ও iii

সৃজনশীল প্রশ্ন :

(১) প্রাকৃতিক দুর্যোগ সিডর বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে। উপকূলের বাসিন্দা আসমত আলী ঝড় ও প্রবল স্রোতের টানে ভেসে যান। উদ্ধারকারী দল তাকে তুলে নেয়। মাথায় আঘাতের কারণে তার কিছুই মনে থাকে না। অন্য দ্বীপে দীর্ঘদিন বসবাস করেন তিনি। পরবর্তীতে একজন সমাজকর্মী আসমতকে মানসিক রোগের হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে দেন। চিকিৎসায় ধীরে ধীরে আসমত ভালো হয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন। এলাকার কোনো মানুষজন, রাস্তাঘাট ঠিকমতো চিনতে না পারলেও আসমতকে ফিরে পেয়ে বাড়ির সবাই আনন্দে আত্মহারা।

(ক) রিপভ্যান উইংকলের স্ত্রী সবসময় ঘ্যান ঘ্যান করত কেন?

উত্তর : রিপভ্যান সবসময় গ্রামের সবার সব কাজে সাহার্য্য করতো। গ্রামের বাচ্চাদেরকে পুতুল বানিয়ে দিত, তাদের সঙ্গে মার্বেল খেলতো এই জন্য গ্রামের সবাই তাকে খুব ভালোবাসতো কিন্তু তার স্ত্রী এই সব মেনে নিতে পারতো না। কারণ রিপভ্যান ছিল অলস সে কোনোদিন পরিশ্রমের কাজ করতো না। সারাদিন আড্ডা মারতো। রিপভ্যানের মতে কষ্ট করে টাকা রোজগার করার চেয়ে না খেয়ে উপোস করে থাকে ভালো। রিপভ্যানের এইরকম অলস আচরণের জন্য তার ছেলেরা হয়ে উঠেছিল অবাদ্ধ ও অলস। এই সব দেখেই রিপভ্যানের স্ত্রী সারা দিন ঘ্যান ঘ্যান করতো।

(খ) রিপ নিজের কোনো দোষ খুঁজে পায় না কেন?

উত্তর : রিপভ্যান গ্রামের বাচ্চাদের সাথে খেলা করতো, গ্রামের সকলের সব কাজে সাহার্য্য করতো কিন্তু তার স্ত্রী সারাদিন এই সব নিয়ে ঘ্যান ঘ্যান করতো। কারণ রিপভ্যান তার নিজের উন্নতির জন্য কঠিন পরিশ্রম করতে আগ্রহী নয়। সে সারাদিন পাথরে বসে মাছ ধরার চেষ্টা করে, বনে বাদাড়ে ফাঁদ পেতে বুনো কাঠ্বেরালি ও কবুতর ধরে বেড়াতো। রিপভ্যানের মতে কঠিন পরিশ্রম করে টাকা রোজগার করার থেকে উপোস করে থাকা অনেক বেশি ভালো ও শান্তির। এই রকম মনোভাবের জন্যই রিপভ্যান তার নিজের দোষগুলি খুঁজে পায় না।

(গ) উদ্দীপকের আসমত আলীর সাথে রিপভ্যান উইংকলগল্পের রিপের যে সাদৃশ্য রয়েছে তা ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : গল্পের রিপভ্যান যেমন পাহাড়ের অচেনা লোকেদের সাথে গিয়ে এক রাত্রি ঘুমিয়েই প্রায় তিরিশ বছর পরে তার গ্রামে ফিরে এসেছিলো। গ্রামে ফেরার পর সে কিছুই আর চিনতে পারেনি। কিন্তু আসতে আসতে যখন সবাই রিপভ্যানকে চিনতে পারলো তখন সবাই খুব খুশি হলো। উদ্দীপকের আসমত আলীও যখন প্রবল ঝড়ের মধ্যে নদীতে ভেসে যায় তখন তাকে  উদ্ধার কর্মীরা জল থেকে তুলে নেয়। কিন্তু সে মাথায় ছোট পায় ফলে সে সব কিছু ভুলে যায়। এবং কনেকে বছর অন্য একটি দ্বীপে বসবাস করে। পরে আরেকজন সমাজকর্মী তাকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসার বাবপস্থা করে। এরপর সে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠে এবং বাড়িতে ফিরে আসে। সে তার গ্রামের মানুষজন, রাস্তা ঘাট কাউকে ঠিকমতো চিনতে না পারলেও তার আপনজনরা তাকে এতদিন পরে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হয়ে ওঠে।

(ঘ) সাদৃশ্য থাকলেও উদ্দীপকের আসমত আলী ও রিপের হারিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপট ভিন্ন- মন্তব্যটি বিশ্লেষণ কর।

উত্তর : উদ্দীপকের আসমত আলী এবং গল্পের রিপভ্যানের ঘটনার সাদৃশ্য থাকলেও তাদের হারিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটটি ছিল একদম ভিন্ন। গল্পের রিপভ্যান প্রতিদিন শিকার করার জন্য পাহাড়ে যেত কিন্ত হটাৎ একদিন তার সাথে একটি অদ্ভুত লোকের দেখা হয়ে যায়। সে তাকে তার সাথে নিজের অন্যসাথীদের কাছে তাদের সঙ্গে মদ্দ পান করে রিপ ঘুমিয়ে পরে এবং প্রায় তিরিশ বছর পরে তার ঘুম ভাঙে। এই ভাবে গল্পে রিপভ্যান হারিয়ে গিয়েছিলো। কিন্তু উদ্দীপকের আসমত হারিয়ে গিয়েছিলো প্রাকৃতিক ঝঞ্ঝার কারণে। প্রবল ঝড়ের জন্য সে নদীতে ভেসে যায় এবং মাথায় চোট লাগার কারণে সব কিছু ভুলে যায়। এবং দূরের অন্য একটি দ্বীপে বসবাস করতে থাকে। এই ভাবে উদ্দীপকের আসমত তার পরিবার ও নিজের গ্রাম থেকে হারিয়ে গিয়েছিলো। উভয় ঘটনা থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় যে গল্পের রিপভ্যান হারিয়ে গিয়েছিলো কোনো অলৌকিক কারণে এবং উদ্দীপকের আসমত হারিয়ে গিয়েছিলো প্রাকৃতিক ঝঞ্ঝার কারণে মাথায় চোট পেয়ে নিজের স্মৃতি শক্তি হারিয়ে। তাই তাদের হারিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপট ছিল একবারে ভিন্ন।

(২) ছোটবেলা থেকেই দারিদ্র্যের সঙ্গে লড়াই করেছেন রিপন সাহেব। কোনো কাজকেই তিনি ছোট মনে করেননি, যখন যেখানে সুযোগ পেয়েছেন তখনই তা আগ্রহ নিয়ে করেছেন। ভাগ্যান্বষণে তিনি বউ ও মেয়েকে বাড়িতে রেখে মালয়েশিয়া চলে যান। দুই বছর চাকরি করার পর সহকর্মীর চক্রান্তে তিনি মামলাতে জড়িয়ে পড়েন। চৌদ্দ বছর জেল খেটে তিনি বহুকষ্টে দেশে ফিরে আসেন। ততোদিনে তার মেয়েটির বিয়ে হয়ে যায়। বাড়ির লোকজন রিপনকে পেয়ে খুশি হন ।

(ক) রিপের পোষ্য প্রাণীর নাম কী?

উত্তর : গল্পের রিপভ্যানের কাছে পোষ্য কুকুর ছিল যার নাম ছিল উলফ।

(খ) রিপ ঘুমিয়ে গিয়েছিল কেন? বর্ণনা কর ।

উত্তর : পাহাড়ের ঘোরাঘুরি করার সময় রিপভ্যান তার পেছনে একটি আওয়াজ শুনতে পেলো সঙ্গে থাকে কুকুরটিও ভয়ে ডাকতে শুরু করলো। এরপরে তারা একজন অদ্ভুত মানুষকে দেখতে পেলো। মানুষটি রিপকে তার নাম ধরে ডাকছিলো। এরপর রিপভ্যান মানুষটির সাথে পাহাড়ের একটি স্থানে যায় যেখানে সেই মানুষটির আরো সাথীদেরকে সে দেখতে পায়। মানুষগুলো দেখতে ছিল অদ্ভুত কারো মাথা বড়ো, কারো মুখ বড়ো, আর তাদের চোখ গুলো ছিল ছোট ছোট। এরপর তারা একসাথে সবাই মদ পান করতে শুরুকরে। এই দেখে রিপভ্যানের ভয় কিছুটা কমে যায়। রিপভ্যানের অনেক্ষন ধরে তেষ্টা পেয়েছিলো তাই সেও মদ পান করা শুরু করে। এরপরেই আস্তে আস্তে তার মাথা ভারী হয়ে আসে এবং সে ঘুমিয়ে পরে।

(গ) উদ্দীপকের রিপন ও রিপভ্যান উইংকলগল্পের রিপের স্বভাবগত দিক ছিল ভিন্ন- ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : গল্পের রিপভ্যান এবং উদ্দীপকের রিপন স্বভাবগত দিক থেকে ছিল একদম ভিন্ন ও বিপরীত। কারণ গল্পের রিপভ্যান ছিল অলস ও অপরিশ্রমী। সে সারাদিন গ্র্রামের বাচ্চাদের সাথে খেলতো এবং তাদের পুতুল বানিয়ে দিতো। নিজের উন্নতির জন্য ছিল সে বিমুখ। তার মতে কঠিন পরিশ্রম করে টাকা  উপার্জন করার থেকে উপোস করে থাকা অনেক বেশি শান্তির। রিপভ্যান ছিল প্রকৃত অর্থে একজন অলস লোক। অপরদিকে, উদ্দীপকের রিপন ছিল কঠিন পরিশ্রমী এবং মেহনতি লোক। সে কোনো কাজকে ছোট করে দেখে না, সব কাজ আগ্রহ নিয়ে করেন। স্ত্রী ও সন্তানের উন্নতির জন্য তিনি মালেশিয়াতে চলে যান চাকরি করতে। তাই সে ছিল প্রকৃত পক্ষে একজন মেহনতি ও পরিশ্রমী লোক।

(ঘ) পরিণতিতে মিল থাকলেও উদ্দীপকটি রিপভ্যান উইংকলগল্পের পুরো বিষয়টি ধারণ করে না- যুক্তিসহ ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : শেষপর্যায়ে গল্প এবং উদ্দীপকের পরিণতি এক হলেও উদ্দীপকটিতে গল্পটির পুরো বিষয়ের সাথে সাদৃশ্যতা দেখতে পাওয়া যায় না। কারণ উদ্দীপকের রিপন ও গল্পের রিপভ্যান এর হারিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষেপটি ছিল একদম ভিন্ন। রিপভ্যান এর সঙ্গে পাহাড়ে একটি অদ্ভুত লোকের সাথে দেখা হয়েছিল এবং যখন সে তার সাথে গিয়ে তার অন্যসাথীদের দেখলো তখন সে ভয় পেলো। কিন্তু যখন সবাই যখন মদ খাওয়া শুরু করলো তখন রিপভ্যানের ভয় কেটে গেলো এবং সেও তাদের সাথে মদ পান করতে করতে ঘুমিয়ে পড়লো। এই ভাবে সে হারিয়ে গেলো। অন্যদিকে, উদ্দীপকের রিপন কাজের জন্য মালেশিয়া গেলে সেখানে তার সহকর্মীর চক্রান্তে তার ১৪ বছরের জেল হেফাজত হয় এবং সে তার বাড়ির লোকের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান। গল্পের রিপভ্যানের হারিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটটি ছিল অলৌকিক অন্য দিকে রিপনের হারিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটটি ছিল সহকর্মীর বিশ্বাসঘতকতা ও চক্রান্ত।

 

Next Chapter Solutions :  

Updated: September 8, 2023 — 2:15 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *